অবৈধ অর্থ রক্ষায় জোর করে ক্ষমতায় থাকতে চায় আ. লীগ: মির্জা ফখরুল

image_print

ওয়াইডনিউজ ডেস্ক: বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করে বলেছেন, আওয়ামী লীগ তাদের অবৈধভাবে উপার্জিত অর্থ-সম্পদ রক্ষা করতেই জোর করে ক্ষমতায় থাকার নীলনকশা করছে।

সোমবার সকালে মহান মে দিবস উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের শোভাযাত্রাপূর্ব সংক্ষিপ্ত সমাবেশে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সাম্প্রতিক বক্তব্যের জবাবে বিএনপি মহাসচিব এই অভিযোগ করে বলেন, উনি বলেছেন, আজ যে রোজগার করছেন তারা, আয় করছেন, সেই আয় নিয়ে পালাতে পারবে না যদি তারা ক্ষমতায় না থাকেন। আজকে তারা স্বীকার করে নিয়েছেন, যে তারা অবৈধ উপায়ে যে অর্থ উপাজর্ন করছে, তাদেরকে জোর করে হলেও ক্ষমতায় টিকে থাকতে হবে। সেজন্য তারা এসব বলার চেষ্টা করছেন। আমি তার বক্তব্যের ধিক্কার জানাই।

আমরা স্পষ্টভাষায় বলতে চাই, দেশের জনগন সেটা কখনোই মেনে নেবে না। অবশ্যই তাদের নীলনকশা বাস্তবায়ন হতে দেবে না।

নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে সকাল পৌনে ১১টায় জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল মে দিবসের শোভাযাত্রা বের করে যা শান্তিনগর মোড় ঘুরে আবার নয়া পল্টনের কার্যালয়ে এসে শেষ হয়।

শ্রমিকদের ন্যায্য মজুরীর দাবি সম্বলিত নানা প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে সহাস্রাধিক নেতা-কর্মী এই শোভাযাত্রায় অংশ নেয়। শোভাযাত্রায় ব্যান্ড সঙ্গীত দল ছাড়া শ্রমিকরা লালসহ নানা রঙের গেঞ্জি ও নীল ক্যাপ পরিধান করে।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করে বলেন, সরকার জোর করে ক্ষমতায় টিকে আছে। আজকে সমগ্র বাংলাদেশে শ্রমিকরা তাদের ন্যায্য অধিকার পাচ্ছে না, তারা নির্যাতিত হচ্ছে শুধু শ্রমিক সংগঠন করার কারণে। শ্রমিকদের অধিকার আদায়রের জন্য জনগনের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। শ্রমিকদের অধিকার রক্ষার জন্য শ্রমিক ভাইদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। শ্রমিকদের অধিকার আদায় করে নিতে হবে, অর্জন করে নিতে হবে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মধ্য দিয়ে। শ্রমিক ঐক্য জিন্দাবাদ।

সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান অভিযোগ করে বলেন, আজো শ্রমজীবী মানুষ তাদের অধিকার ফিরে পায়নি। তাদের কর্মক্ষেত্র নিরাপদ নয়। প্রতি বছর হাজার হাজার মানুষ কর্মক্ষেত্রে মারা যাচ্ছে। প্রতিদিন বায়লার বিস্ফোরণে, শিপইয়ার্ডে আমাদের শ্রমিকরা মারা যাচ্ছে।

আজো শ্রমিকরা তাদের ন্যায্য মজুরী পাচ্ছে না, জাতীয় মজুরী কমিশন ঘোষণা করা হয়নাই। আজো শ্রমজীবী মানুষের যে আইন, কর্মক্ষেত্র গণতান্ত্রিক না। এই অবস্থা থেকে উত্তরণ ঘটাতে হলে জনগনের নির্বাচিত সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসাইনের সভাপতিত্বে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীও বক্তব্য রাখেন।

শোভাযাত্রায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও নজরুল ইসলাম খান ছাড়াও শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম খান নাসিম কেন্দ্রীয় নেতা আবুল কালাম আজাদ, মেহেদি আলী খান, মোস্তাফিজুল করীম, মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু, আসাদুজ্জামান বাবুল প্রমূখ নেতৃবৃন্দ অংশ নেন।
এছাড়া মহানগর বিএনপি দক্ষিণের সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, প্রশিক্ষন বিষয়ক সম্পাদক এ বি এম মোশাররফ হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, মহানগর দক্ষিনের সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার, উত্তরের সাধারণ সম্পাদক আহসানউল্লাহ হাসান, সহসভাপতি মুন্সি বজলুল বাসিত আনজু প্রমুখ ছিলেন।

image_print

Be the first to comment on "অবৈধ অর্থ রক্ষায় জোর করে ক্ষমতায় থাকতে চায় আ. লীগ: মির্জা ফখরুল"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*


Pin It on Pinterest