নানা আয়ােজনে পালিত হচ্ছে মহান মে দিবস

image_print

ওয়াইডনিউজ ডেস্ক: আজ মহান মে দিবস। রাজধানীসহ সারাদেশে র্যা লি, আলোচনা সভা, সমাবেশ, মানববন্ধনের মাধ্যমে শ্রমিকদের অধিকার নিশ্চিতের দাবি তুলে পালিত হচ্ছে দিবসটি।

শোষণ ও বঞ্চনার প্রতিবাদে ১৮৮৬ সালের এই দিনে বুকের তাজা রক্ত ঝরিয়েছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের সব শিল্পাঞ্চলের শ্রমিকরা। এর পর থেকেই পালিত হয়ে আসছে দিবসটি। ১৯৭২ সাল থেকে বাংলাদেশেও দিনটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করা হচ্ছে।

সোমবার (১ মে) রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে শ্রমিকদের অধিকার ও তা নিশ্চিতের দাবি উল্লেখ করে ব্যানার, ফেস্টুন, প্ল্যাকার্ড নিয়ে সকাল থেকেই জড়ো হয়েছেন শ্রমিক নেতারা। শ্রমিক সংগঠন ছাড়াও শ্রমিকদের অধিকার নিয়ে কাজ করা বিভিন্ন সংগঠনও অংশ নিয়েছে এই কর্মসূচিতে।

বাজনার তালে তালে, গানে-গানেও শ্রমিকরা তাদের দাবি তুলে ধরেন। এসময় শ্রমিকদের হাতে ছিল লাল পতাকা, প্ল্যাকার্ড। তাদের মুখে ছিল অধিকারের স্লোগান।

বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন, জাগো বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন, ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন, বাংলাদেশি অভিবাসী মহিলা শ্রমিক অ্যাসোসিয়েশন, শ্রমিক কর্মচারি ঐক্য পরিষদ ছাড়াও আরও কয়েকটি সংগঠন প্রেসক্লাবের সামনে মে দিবসের কর্মসূচি পালন করছে।

এসময় শ্রমিক ও শ্রমিক সংগঠনগুলো দাবি করে বলেন, হাজার বছর ধরে শ্রমিকরা শোষিত। তাদের অধিকার নিশ্চিত করা হয়নি আজও। শ্রমিকদের শ্রমের ন্যায্য মূল্য দেওয়া হয় না। এছাড়া শ্রমিকদের বাঁচার মতো মজুরি ও নিরাপদ কর্মস্থলের দাবির কথাও তুলে ধরেছেন শ্রমিক ও শ্রমিক নেতারা। প্রায় সব শ্রমিক সংগঠনের সব দাবির মধ্যে রয়েছে এই দাবিগুলো।

এই দিনে বিভিন্ন কর্মসূচিতে পোশাক শ্রমিকরা বাঁচার মতো মজুরি, নিরাপদ ও মানবিক কর্মস্থল, রানা প্লাজার জায়গায় পোশাক শ্রমিকদের জন্য হাসপাতাল নির্মাণ, পোশাক শ্রমিকদের নিরাপত্তা, মর্যাদা ও জীবনমান নিশ্চিতের দাবি জানিয়েছেন।

এদিকে, অভিবাসীদের অধিকার, নিরাপত্তা ও ন্যায় বিচারের দাবি তুলেছে বাংলাদেশি অভিবাসী মহিলা শ্রমিক অ্যাসোসিয়েশন।

অন্যদিকে শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ শ্রমিকের নিরাপত্তা নিশ্চিতসহ ন্যায্য বেতনভাতা ও রানা প্লাজার শ্রমিকদের ক্ষতিপূরণ দাবি করেছে।

image_print

Be the first to comment on "নানা আয়ােজনে পালিত হচ্ছে মহান মে দিবস"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*


Pin It on Pinterest