ধর্ষণের মামলায় সাফাত আহমেদের বাড়িতে পুলিশের অভিযান

image_print

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর বনানীতে দ্যা রেইন ট্রি হোটেলে দুই ছাত্রীকে আটকে রেখে গণধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় ব্যবসায়ীপুত্র সাফাত আহমেদের গুলশানের বাড়িতে মঙ্গলবার সকালে পুলিশ অভিযান চালিয়েছে। তাকে না পেয়ে তার বাবা ব্যবসায়ী দিলদার হোসেন সেলিমকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বনানী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুল মতিন এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, বেলা ১১টার দিকে গুলশানের ৬২ নম্বর রোডের ২ নম্বর বাড়িতে এ অভিযান চালানো হয়। সাফাতকে পাওয়া যায়নি। তার বাবাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

অভিযোগে জানা যায়, গত ২৮ মার্চ বনানীর ২৭ নম্বর রোডের কে ব্লকের ৪৯ নম্বর ‘দি রেইনট্রি’ হোটেলের একটি কক্ষে সারারাত তাদের আটকে রেখে ধর্ষণ করে সাফাত আহমেদ ও তার বন্ধু নাঈম আশরাফ। ১ মাস পর গত ৪ মে দুই ছাত্রীর একজন এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ করেন। এরপর ২ দিন টালবাহানা শেষে গত শনিবার মামলা নেয় পুলিশ। মামলায় ৫ জনকে আসামি করা হয়। আসামিরা হলেন, সাফাত আহমেদ, একুশে টেলিভিশনের বিজ্ঞাপন বিভাগের কর্মকর্তা নাইম আশরাফ, পিয়াকো রেস্টুরেন্টের মালিক সাদনান সাকিফ, সাফাত আহমেদের দেহরক্ষী ও তার গাড়িচালক। গত ৬ মে এ ঘটনায় ভুক্তভোগী দুই ছাত্রী থানায় মামলা করেন। পরে ৭ মে রবিবার দুই ছাত্রীর মেডিকেল পরীক্ষা করা হয়।

এদিকে অভিযোগ উঠেছে, এই মামলায় আসামিরা প্রভাবশালী হওয়ায় পুলিশ তাদের আটক করছে না। ভুক্তভোগী দুই ছাত্রী অভিযোগ করেছেন, নানাভাবে পুলিশ তাদের হয়রানি করছে। তাদের অভিযোগ থানায় মামলা দায়েরের পর আসামিরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। পুলিশ তাদের আটক করছেনা।

এ নিয়ে গণমাধ্যমে লেখালেখির পর সোমবার থেকে পুলিশ নড়েচড়ে বসে।

image_print

Be the first to comment on "ধর্ষণের মামলায় সাফাত আহমেদের বাড়িতে পুলিশের অভিযান"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*


Pin It on Pinterest